All posts by onlinesolutionsbd02

I am textile engineer. Online Professional

কিভাবে ইউটুব থেকে টাকা আয় করা যায়।

Online Solutions For Bangladesh

ইউটুব থেকে মাসে  ২,০০,০০.০০ টাকা পর্যন্ত আয় করা সম্ভব। আপনাকে শুধু কিছু ফরমালিটিস অনুসরন করতে হবে।

প্রথমে ইউটুবে একটি একাউন্ট তৈরী করতে হবে আপনাকে। সহজে বুঝার জন্য ফটো দিয়ে দিচ্ছি। মার্ক করা জায়গা গুলো অনুসরন করবেন।

1

Create studio তে ক্লিক করবেন। তারপর…

2

একটি চ্যানেল তৈরি করবেন। তারপর …।

3

আপনি চ্যানেল এর নাম নির্বাচন করবেন। প্রথম ঘড়ে একটি এবং দ্বীতিয় ঘড়ে একটি নাম দিয়ে ক্রীয়েট চ্যানেল এ ক্লিক করবেন । তারপর…।

4

এখন মার্ক করা জায়গাতে মানে চ্যানেল এ ক্লিক করবেন । তারপর …।

5

এখন ভেরিফাই অপশন এ ক্লিক করবেন । তারপর …।

6

এখন সিলেক্ট ইয়উর কান্ট্রি… এখানে বাংলাদেশ সিলেক্ট করবেন। তার পর text me the verification code

সিলেক্ট করবেন ।  কারন কল করার অপশন ক্লিক করলে আপনাকে কল করে কোড বলে দেয়া হবে, আপনার যদি নেটওয়ার্ক সমস্যা থাকে তাহলে আমি কোড নাউ শুনতে পারেন। কোড টি আপনাকে একবার এ আপনাকে দেয়া হবে । তাই টেক্সট অপশন টি সিলেক্ট করেন। তারপর…।

7

এখন…

View original post 385 more words

কিভাবে অনলাইনে টাকা আয় করবো

আসসালামু আলাইকুম, আমার প্রথম টিউটোরিয়ালে আপনাকে স্বাগতম।

আজকে আপনাদের কাছে নিয়ে আসলাম দুইটি PTC সাইট। এখানে আপনাকে কোনো করম ইনভেস্ট করতে হবে না। এই সাইট গুলো PTC জগতের রাজা না বললেই নয়। সব চেয়ে বেশি ডলার পে করে থাকে এই সাইট গুলো।

আমি অনেক দিন ধরেই কাজ করে আসছি এই সাইটে। আপনাকে প্রত্যেক দিন তারা কিছু বোনাস এড দিবে এবং পেইড এদ দিবে। আপনি যত বেশি দিন কাজ করবেন এখানে ধীরে ধীরে আপনার আয় ততই বারতে থাকবে।

একটা কথা আগেই বলে রাখা ভালো, PTC সাইট থেকে আপনি হাজার হাজার বা লাখ টাকা আয় করতে পারবেন না। PTC সাইট এর টাকা দিয়ে কেবল মাত্র আপনার পকেট খরচ বা ইন্টারনেটের বিল দিতে পারবেন। কারন PTC সাইট কম ডলার পে করে।

কিন্তু অবসর বসে না কাটিয়ে অল্প কিছু সময় এখানে ব্যয় করলে ক্ষতি কি? বং লাভ ই হচ্ছে। আমি আগে ফেইসবুক উইজ করতাম সারাদিন, এখন আফসোস করি, কেনো আগে এই কাজ করিনি। যাই হোক কথা না বারিয়ে কাজের কথায় আসি।

paidtree এই সাইটে কাজ করলে আপনি অল্প সময়ে অনেক বেশি টাকা আয় করতে পারবেন। এখানে ১৬ টা গ্রুপ আছে, প্রত্যেক দিন আপনাকে ২৫০ BAP দিবে আপনাকে, ১৬৫০ BAP হওয়ার আগে আপনার টাকা আয় হবে না। ১৬৫০ BAP হয়ার পর হবেন গ্রুপ ১ এর মেম্বার। প্রত্যেক দিন আপনি আয় করতে পারবেন .০.১৯ ডলার করে। প্রত্যেক দিন BAP আস্তে থাকবে আর আপনার গ্রুপ আপ হতে থাকবে, সাথে সাথে আপনার আয় বারতে থাকবে।

রেজিস্ট্রেশন করতে ক্লিক করুন এখানে

স্কাইপিঃ rafiqulislamraju969

ফেসবুকঃ https://www.facebook.com/rafiqulislamraju969

মোবাইলঃ ০১৮১১০০১২৭০

ভালো থাকুন সুস্থ্য থাকুন, আমাদের সাথেই থাকুন নতুন নতুন আপডেটস পেতে।

খোদা হাফেজ !

কিভাবে ইউটুব থেকে টাকা আয় করা যায়।

ইউটুব থেকে মাসে  ২,০০,০০.০০ টাকা পর্যন্ত আয় করা সম্ভব। আপনাকে শুধু কিছু ফরমালিটিস অনুসরন করতে হবে।

প্রথমে ইউটুবে একটি একাউন্ট তৈরী করতে হবে আপনাকে। সহজে বুঝার জন্য ফটো দিয়ে দিচ্ছি। মার্ক করা জায়গা গুলো অনুসরন করবেন।

1

Create studio তে ক্লিক করবেন। তারপর…

2

একটি চ্যানেল তৈরি করবেন। তারপর …।

3

আপনি চ্যানেল এর নাম নির্বাচন করবেন। প্রথম ঘড়ে একটি এবং দ্বীতিয় ঘড়ে একটি নাম দিয়ে ক্রীয়েট চ্যানেল এ ক্লিক করবেন । তারপর…।

4

এখন মার্ক করা জায়গাতে মানে চ্যানেল এ ক্লিক করবেন । তারপর …।

5

এখন ভেরিফাই অপশন এ ক্লিক করবেন । তারপর …।

6

এখন সিলেক্ট ইয়উর কান্ট্রি… এখানে বাংলাদেশ সিলেক্ট করবেন। তার পর text me the verification code

সিলেক্ট করবেন ।  কারন কল করার অপশন ক্লিক করলে আপনাকে কল করে কোড বলে দেয়া হবে, আপনার যদি নেটওয়ার্ক সমস্যা থাকে তাহলে আমি কোড নাউ শুনতে পারেন। কোড টি আপনাকে একবার এ আপনাকে দেয়া হবে । তাই টেক্সট অপশন টি সিলেক্ট করেন। তারপর…।

7

এখন আপনার মোবাইল নাম্বার দিন এই ঘড়টিতে তার পর সাবমিট এ ক্লিক করবেন। তারপর…।

8

এখন আপনাকে কন্টিনিউতে ক্লিক করতে হবে। তারপর …।

9

এখন এডভান্সড অপশন ক্লিক করবেন । তারপর …।

10

দেখুন এখানে আপনি বাংলাদেশ দিয়ে ভেরিফাই করেছেন, কিন্তু এখন এখানে আপনাকে ইউনাইটেড স্টেটস সিলেক্ট করতে হবে। কারন ইউটিউব বাংলাদেশ কে ভেরিফাই অথবা মনিটাইজ করেনা। এখানে বাংলাদেশ দিলে আপনার চ্যানেল মনিটাইজ হবেনা, আপনি টাকা পাবেন না। তাই এখানে ইউনাইটেড স্টেটস সিলেক্ট করবেন । তাহলে মনিটাইজ অপশন পাবেন। এডসেন্স একাউন্ট এড করতে পারবেন। তারপর …।

11

স্ক্রল ডাউন করে নিচে নেমে আসেন। তারপর সেভ অপশন এ ক্লিক করবেন। তারপর …।

12

এখন স্টেটাস এন্ড ফিচারস এ ক্লিক করেন । তারপর …।

13

এখন মার্ক করা জায়গা তে ক্লিক করতে হবে, এটাই মনিটাইজ অপশন এটা এনাবল করলে আপনি ডলার পাবেন। এনাবল এ ক্লিক করুন । তারপর …।

14

এখন গেট স্টার্টেড এ ক্লিক করুন নতুন একটি ডায়লগ বক্স ওপেন হবে । তারপর …।

15

এই তিনটি অপশন এ টিক চিহ্ন দিয়ে দিন । তারপর আই এক্সেপ্ট অপশন এ ক্লিক করবেন। তারপর…।

16

সেট আপ এডসেন্স একাউন্ট । এখানে ক্লিক করেন । তারপর আপনার এডসেন্স একাউন্ট এখানে এড করে দিবেন। তার পর আপনাকে টাইম দিবে যে এত দিনের মধ্যে এড হবে । এড হলেই আপনি টাকা পাবেন।

এখন এসুন আসল কথায়…।

আপনার চ্যানেল এ বেশি বেশি ভিডিও আপলোড করবেন। নির্দিস্ট সময় পর পর নিয়মিত । তাহলে আপনার ভিউয়ার বারবে। যত ভিউয়ার হবে আপনি তত বেশি ডলার পাবেন। ভিডিও এডিট করে সাবস্ক্রাইব লিখে দিবেন। বেশি বেশি সাবস্ক্রাইব করতে বলবেন। কারন সাবস্ক্রাইব লাইক এগুলোর উপর পার্সেন্টেজ আছে। আপনাকে এমন ভিডিও আপলোড করতে হবে যে সব ভিডিও মানুষের মন জয় করবে । আপনি যদি আলতু ফালতু ভিডিও দিয়ে বলেন সাবস্ক্রাইব করতে তাহলে তো আর সাবস্ক্রাইক করবে না । তাই ভালো মানের সুন্দর ভিডিও আপলোড করবেন । আপনি ভিডিও আপলোড করার টাইম মেন্টেইন করতে পারেন । তাহলে নির্দিস্ট সময় পর পর আপনার ভিডিও সবাই দেখতে পারবে এবং আপনার চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করবে । মান সম্পন্য ভিডিও আপলোড করবেন। একটা ভিডিও যদি প্রায় ১০০০ বার ভিউ হয় তাহলে ১$ ডলার আপনার এডসেন্স একাউনট এ চলে যাবে । কিন্তু এই ডলার প্রত্যেক মাসের একটি নির্দিস্ট সময় একাই চলে যাবে আপনাকে কিছু করতে হবে না।

যদি কোথাও না বুঝেন । আমাকে জানাবেন হেল্প করবো ইনশা আল্লাহ।

স্কাইপিঃ rafiqulislamraju969

ফেসবুকঃ https://www.facebook.com/rafiqulislamraju969

মোবাইলঃ ০১৮১১০০১২৭০

আজকের মতে এখানেই বিদায় নিচ্ছি। পরবর্তি পোস্টে নতুন কিছু নিয়ে হাজির হব আপনাদের সামনে ।

ভালো থাকুন সুস্থ্য থাকুন এই প্রত্যাশায়, আল্লাহ হাফেয।

bangla voice chatroom

বাংলাদেশী চ্যাটিং সাইট। অনলাইনে আমরা অনেকেই অবসর সময় কোনো না কোনো সোসাল সাইটে চ্যাটিং করতে পছন্দ করি। কিন্তু আমরা অনেকেই জানিনা যে, বাংলাদেশেও লাইভ ভয়েস চ্যাটিং সাইট রয়েছে। তার মধ্যে আমার জানা মতে প্রথম স্থান অধিকার করেছে কথাচ্যাট । গত ১১ বছর ধরে সাফল্যতার সাথে এগিয়ে চলেছে কথাচ্যাট  চ্যাটিং সাইট টি। এই সাইট টি অন্যান্য চ্যাটিং সাইট অপেক্ষা অনেক ভালো । আপনি আড্ডা দিলে নিশ্চই তা অনুধাবন করতে পারবেন।12695046_1055783344463937_904893162221396328_o কথাচ্যাট এটি একটি ফ্ল্যাশ চ্যাট রুম সাইট। এখানে শুধু লিখে নয়, বরং আপনি সরাসরি প্রত্যেক ইউজার এর সাথে কথা বলতে পারবেন। যেখানে আপনার কথা সবাই শুনতে পারবে, এবং আপনি নিজেও সবার কথা শুনতে পারবেন। এমনকি লাইভ ক্যামেরা ওপেন করে আপনি সবাইকে দেখতে পারবেন। এবং নিজেকেও দেখাতে পারবেন সবাইকে।

বর্তমানে বাংলাদেশে ২০০+ ফ্ল্যাশ চ্যাটিং সাইট রয়েছে। আমি সেগুলো নিয়ে কথা বলছি না। কেননা অন্যান্য সাইট অপেক্ষা কথাচ্যাট বেস্ট। এই সাইটে অন্যান্য সাইটের সদস্য গন এসে আড্ডা দিয়ে থাকেন ( এডমিন, সুপার মডারেটর, মডারেটর, ভি আই পি, এবং ইউজার গন এখানে আড্ডা দিয়ে থাকেন। এবং এটা প্রমানীত।

এই সাইটের সবচেয়ে বড় গুন হচ্চে এখানে কোনো গালিবায,জাতাবাজ,গুটিবাজ লোক আড্ডা দিতে পারে না। কারন এই সাইটের মেম্বার গন খুবি সচেতন। আপনার যদি কোনো ইউজার এর কথা খারাপ লাগে, আপনি যে কোনো একজন মেম্বার ( সদস্য) গন কে জানান। তারা সাথে সাথে বিষয় টি খতিয়ে দেখবে। এবং যথাযথ ভাবে আপনার টেক কেয়ার করবে। আমি নিজেও এখানে অনেক সবর সময় কাটাই। খুবি ভালো লাগে এই সাইট টি। নিশ্চই আপনারও ভালো লাগবে।

সচেতনতাঃ এখানে কারো সাথে খারাপ ব্যবহার, গালমন্দ, জাতাবাজি থেকে দূরে থাকুন। এবং কোনো ওয়েব সাইটের লিঙ্ক এখানে শেয়ার করবেন না। কোনো সোসাল মিডিয়া আইডি ( ফেসবুক, টুইটার, ইয়াহু, জি-মেইল, ইমেইল, স্কাইপ, হোয়াটসএপ, ভাইবার, ইমু,) ইত্যাদি ইত্যাদি কখনোই কারো সাথে শেয়ার করবেন না। শেয়ার করলে  মেম্বার (সদস্য) গন আপনার  আইপি এড্রেস বেন করে দিবে। তারপর থেকে আপনি এখানে লগিন করতে পারবেন না। কাজেই সর্ত গুলো অবলম্বন করুন।

আপনার খারাপ লাগা সময়, অবসর সময় কাটিয়ে নিন। কথাচ্যাট চ্যাটিং সাইটে আড্ডা দিয়ে। এখানে উপভোগ করতে পারবেন। গান, কবিতা, গল্প, জোকস, ফান, ইত্যাদি ইত্যাদি। এই সাইট থেকে বানিয়ে নিতে পারেন আপনার একজন রিয়াল বন্ধু। এখানে সকল ছেলে-মেয়ে খুবি ফ্রেন্ডলি এবং ইনোসেন্ট। তাদের সাথে আড্ডা দিয়ে সময় ভালোই কাটাতে পারবেন।

এখানে আড্ডা দিয়ে আমার সময় ভালোই কেটে যাচ্ছে। সারাদিন ব্যস্ততার মাঝেও একটু সময় বের করি এই সাইটে আড্ডা দেয়ার জন্য। আপনারা নিশ্চই বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিতে অনেক পছন্দ করেন। কিন্তু সময়ের অভাবে  পারছেন না। তাই ঘড়ে বসেই আড্ডা দিন কথাচ্যাট এ । হৈ হোল্লোর, আনন্দ-উল্লাসে মেতে থাকুন সবসময়।

ফ্ল্যাশ চ্যাট রুম ইউজ করা খুবি সহজ। বিস্তারীত জানতে আমার আগের পোস্টটি দেখুনএখানে ।

আমরা বাংলীরা অনেক ভোজনরসিক এবং আড্ডা টা জমিয়ে দিতে পারি। নিজের কাজ ফাকি দেই, জব ফাকি দেই শুধু বিন্ধুদের সাথে একটু আডদা দেবো বলে। স্কুল কলেজ যে কতবার ফাকিদিয়ে আড্ডা দেই তা হিসেবের বাইরে। ইভেন আমি নিজেও স্কুল ফাকি দিয়ে বন্ধুদের সাথে অনেক আড্ডা দেই। আড্ডা দেয়ার মজাটাই আলাদা। যারা জব করেন তারা এখন অনলাইনেই খুব সুন্দর ভাবে আড্ডা দিতে পারবেন। আপনাদের অবসর সময়ে যেনো বোরিং না হয়ে যান, তাই আপনাদের জন্য আমার এই প্রচেষ্টা।

বাচালের মত অনেক কথা বলে ফেললাম। কারো যদি খারাপ লেগে থাকে এবং আমার লিখায় কোনো ভুল ত্রুটি থেকে থাকে, তাহলে অনুগ্রহ পুর্বক ক্ষমা সুন্দর দৃস্টিতে দেখবেন।

ভালো থাকুন সুস্থ্য থাকুন এই প্রত্যাশায় বিদায় নিচ্ছি। খোদা হাফেজ………………

পোস্টেড বাইঃ রফিকুল ইসলাম -(রাজু)-

পাচ ওয়াক্ত নামাজের দুয়া ও নিয়াত সমুহ

নামাজ ইসলাম ধর্মের প্রধান ইবাদত। প্রতিদিন ৫ ওয়াক্ত (নির্দিষ্ট নামাযের নির্দিষ্ট সময়) নামাজ পড়া প্রত্যেক মুসলমানের জন্য আবশ্যক বা ফরয্‌। নামায ইসলামের পঞ্চস্তম্ভের একটি। শাহাদাহ্‌ বা বিশ্বাসের পর নামাযই ইসলামের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ। তাই সকলের জন্য সঠিক ভাবে নামাজ আদায় করা আবশ্যক। জেনে নিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের নিয়ত ও বাংলায় মোনাজাত।

ফজরের নামাজ

ফজরের ২ রাকাত সুন্নত নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা রাকয়াতাই সালাতিল ফাজরি, সুন্নাতু রাসুলিল্লা-হি তাআলা মুতাও য়াজজিহান্ ইলা জিহাতিল কা’বাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আক্বার।)

ফজরের ২ রাকাত ফরজ নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা রাকয়াতাই সালাতিল ফাজরি, ফারজুল্লা-হি তায়ালা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কা’বাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)
বিশেয় দ্রষ্টব্যঃ  ইমামতি করিতে-আনা ইমামুল্লিমান হাজারা ও মাইয়্যাফজুরু সহ মুতাওয়াজ্জিহান বলতে হবে আর ইমামের পিছনে নামাজ পড়িতে হলে বলতে হবে(এক্তাদাইতু বিহা-যাল ইমামি মুতা ওয়াজ্জিহান…)

জোহরের নামাজ

জোহরের নাময মোট ১২ রাকাত। সূর্য মাথার উপর হইতে পশ্চিম্ দিকে একটু হেলিয়া পড়িলেই জোহরের নামাযের ওয়াক্ত আরম্ভ হয় এবং কোন কিছুর ছায়া দ্বিগুণ হইলে জোহরের ওয়াক্ত শেষ হইয়া যায়।

জোহরের ৪ রাকায়াত সুন্নত নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-তাআলা আরবাআ রাকয়াতি সালাতিজ জোহরি সুন্নাতু রাসুলিল্লা-হি তায়ালা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার। )

জোহরের ৪ রাকায়াত ফরজ নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা আরবাআ রাকয়াতি সালাতিজ জোহরি ফারজুল্লাহি তাআলঅ মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

জোহরের ২ রাকায়াত সুন্নত নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা রাকায়াতাই সালাতিজ জোহরি সুন্নাতি রাসূলিল্লা-হি তাআলা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।

জোহরের ২ রাকায়াত নফল নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা রাকয়াতাই সালাতিল নাফলি মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

আছরের নামাজ

আছরের নামায মোট ৮ রাকাত। কোন লাকড়ির ছায়া দ্বিগুণ হওয়ার পর হইতে সূর্যাস্তের ১৫/২০ মিনিট পূর্বে পর্যন্ত আছরের নামাযের সময় থাকে।

আছরের চার রাকায়াত সুন্নাত নামাযের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইত ুআন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা আরবাআ রাকায়াতি সালাতিল আছরি সুন্নাতু রাসূলিল্লা-হি তাআলা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

আছরের চার রাকায়াত ফরজ নামাযের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইত ুআন্উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা আরবাআ রাকায়াতি সালাতিল আছরি ফারজুল্লা-হি তাআলা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

মাগরিবের নামাজ

মাগরিবের নামায মোট ০৭ রাকায়াত। সূর্যাস্তের পর হইতে মাগরিবের নামাযের সময় হয় মাগরিবের ওয়াক্ত অতি অল্পকাল স্থায়ী।

মাগরিবের ৩ রাকায়াত ফরজ নামাযের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা ছালাছা রাকয়াতি সালাতিল মাগরিব ফারজুল্লা-হি তাআলা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

মাগরিবের ২ রাকায়াত সুন্নাত ফরজ নামাযের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা রাকয়াতাই সালাতিল মাগরিবি সুন্নাতু রাসূলিল্লা-হি তায়ালা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)
উক্ত দুই রাকায়াত সুন্নত নামায শেষ হইলে দুই রাকয়াত নফল নামাজ পরিবেন।

এশার নামাজ

এশার ৪ রাকায়াত সুন্নত নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা আরবাআ রাকয়াতি এশায়ি সুন্নাতু রাসূলিল্লা-হি তায়ালা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

এশার চার রাকায়াত ফরজ নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইত ুআন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা আরবাআ রাকয়াতি এশায়ি ফারজুল্লা-হি তায়ালা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।

এশার দুই রাকায়াত সুন্নাত নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা রাকায়াতি সালাতিল এশায়ি সুন্নাতু রাসুূলিল্লা-হি তাআলা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

তিন রাকায়াত বেতের নামাজের নিয়ত

বাংলায় : (নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা ছালাছা রাকায়াতি সালাতিল বিতরি ওয়াজিবুল্লা-হি তাআলা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের তাসবিহ

১। ফজরের নামাজের তাসবিহ
বাংলায় : (হুয়াল হাইয়্যুল কাইয়্যুম।)-তিনি চির জীবিত ও চিরস্থায়ী।
২। জোহরের নামাজের তাসবিহ
বাংলায় : (হুয়াল আলিইয়্যাল আজীম)-তিনি শ্রেষ্ট্রতর অতি মহান।
৩। আছরের নামাজের তাসবিহ
বাংলায় : (হুয়ার রাহমা- নুর রাহীম)-তিনি কৃপাময় ও করুনা নিধান।
৪। মাগরিবের নামায পড়ে পরিবার তাসবিহ
বাংলায় : (হুয়াল গাফুরুর রাহীম)- তিনি মার্জনাকারী ও করুণাময়।
৫। এশার নামায পড়ে পরিবার তাসবিহ
বাংলায় : (হুয়াল্ লাতিফুল খাবীর)- তিনি পাক ও অতিশয় সতর্কশীল।
সালাম বাংলায় : আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। )

মোনাজাত বাংলায় :

(রাব্বানা আ-তিনা ফিদ্দুনইয়া হাসানাওঁ ওয়াফিল আখিরাতি হাছানাতাওঁ ওয়াকিনা আজাবান্নার। ওয়া সাল্লাল্লাহু- তাআলা আলা খাইরি খালক্বিহী মুহাম্মাদিওঁ ওয়া আ-লিহি ওয়াআছহাবিহী আজমায়ীন। বিরাহমাতিকা ইয়া আরিহামার রাহিমীন।)
বিঃ দ্রিঃ কেহ যদি ভুলিয়া কেবলা ঠিক করিতে না পারে তবে নিজের বিবেক যেই দিকে সাক্ষ্য যে, সেই দিকে মুখ করিয়া নামায পরিবে।
পোস্টেড বাই… রফিকুল ইসলাম -(রাজু)-

স্কাইপিঃ rafiqulislamraju969

ফেসবুকঃ https://www.facebook.com/rafiqulislamraju969

মোবাইলঃ ০১৮১১০০১২৭০

খোদা হাফেজ!